মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি 27, 2024
HomeNewsশিব পূজা

শিব পূজা

শিব পূজা

শিব পূজা:  হিন্দু ধর্মের সকল দেবের দেব হলেন ভগবান শিব। তিনি হলেন মহা শক্তিধর । যার কোন আদি ও অন্ত নেই । হিন্দু পুরাণ আনুসারে শিব হলেন বিশ্ব ব্রহ্মাণ্ডের সৃষ্টির মূল আধার । আথচ তিনি অল্প পুজোতেই সন্তুষ্ট । সামান্য ফুল , বেলপাতা আর জল দিয়েই মাহাদেব প্রসন্ন হন ।

ভগবান শিব কে ভক্তরা মহাদেব, আশুতোষ, ভোলানাথ, বৈদ্যনাথ , বিশ্বনাথ ইত্যাদি নামে সম্মোধন করে থাকেন । শিব পুজোর জন্য শ্রাবণ মাস ফলদায়ক বলে মনে করা হয় । শ্রাবণ মাসের ,প্রতি সোমবার মহাদেবের পূজা আরাধনায় ভক্তরা মেতে উঠেন । শিব ভক্তদের আস্থা অনুযায়ী শ্রাবণ মাসে শিব পুজো করলে ভগবান শিবের কৃপায় যে কোন সাংসারিক সমস্যা দূর হয়ে যায় । এছাড়াও মনোকামনা পূর্ণের জন্য ভগবান শিবের পুজো বিশেষ তিথি আনুসারে করা হয় । যেমন – মহা শিবরাত্রি , নীল ষষ্ঠী ।

শ্রাবণ মাসে শিব পুজো

শাস্ত্র মতে শ্রাবণ মাসে সোমবারের দিনগুলি শিব ভক্তদের কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ দিন  ।  প্রতি বছর শ্রাবণ মাসে সোমবারের দিনগুলিতে শিব ভক্তরা শিবলিঙ্গে জল অভিষেকের জন্য গঙ্গা নদী থেকে ঘটে জল ভরে নিয়ে আসেন তারপর ভক্তগন পায়ে হেঁটে বাঁক কাঁধে নিয়ে যাত্রা বের করেন এবং সেই গঙ্গাজলকে মন্দিরে শিবলিঙ্গে অভিষেক করেন । আবার কেউ বাড়িতেই উপবাস রেখে শিবলিঙ্গে জল অভিষেক করেন।

বহু ভক্তগণ শ্রাবণ মাসের প্রতিটি সোমবার বাড়িতে আথবা মান্দিরে পূজা-অর্চনা করে শ্রাবণ মাসে সোমবারে শিবের ব্রত পালন করেন । মনে করা হয় যে শ্রাবণ মাসের সোমবার গুলিতে শিবের ব্রতপাঠ পালনে আমাদের সমস্ত প্রকার মনস্কামনা পূরণ হয় । এছাড়াও শ্রাবণ মাসে শিব পূজার বিশেষ মাহাত্ম্য রয়েছে ।

শ্রাবণ মাসে শিব পূজার মাহাত্ম্য

শ্রাবণ মাস ভগবান শিবের মাস । শাস্ত্র মতে শ্রাবণ মাস থেকে ষোল সোমবারের পুজো শুরু করলে বাবা ভোলেনাথ সন্তুষ্ট হন এবং তার কৃপায় যশ , সৌভাগ্য সুখ-শান্তি প্রাপ্তি হয় । যারা সারা বছর মহাদেবের পুজো করতে পারেন না তারা যদি শ্রাবণ মাসের প্রতিটি সোমবার মহাদেবের পুজো করতে পারেন তাহলে সর্বশক্তিমান শিব অতি সহজেই প্রসন্ন হন । আর একবার মহাদেব কারো উপর খুশি হলে তার ভাগ্য বদলে যেতে সময় লাগে না।

শ্রাবণ শব্দের উৎসে রয়েছে ” শ্রবণ ” । এই মাস যাবতীয় শুভ কথা শ্রবণের মাস। শ্রাবণ মাস উদযাপনের বিষয়ে কিছু কর্তব্য কে পালন করে আসা হয় পরম্পরাগত ভাবে এই মাসের প্রতিদিন স্নানের পরেই শিব স্তোত্র পাঠকের আবশ্যক মনে করে শিব ভক্তরা। বলা হয় শ্রাবণ মাসে রুদ্রাক্ষ ধারণের জন্য প্রশস্ত সময় । সেই কারণে শিবলিঙ্গে শ্রাবণ মাসে দুধ এবং জল ঢেলে পুজো করেন ভক্তরা।

শিব পূজা

বিশেষ করে শ্রাবণ মাসের সোমবারের দিন গুলিতে উপবাস রেখে শিবলিঙ্গে দুধ অথবা জল ঢালার নিয়ম রয়েছে । এতে পূর্ণলাভ হয় বলে বিশ্বাস রয়েছে । শ্রাবণ মাসে বেশি করে ভজন, কীর্তন শুনলে তা আধ্যাত্মিকভাবে মানুষের আত্মাকে শোধন করে বলে মনে করা হয়।

এমনটাই বিশ্বাস করা হয় যে প্রতিদিন ” ওম নমঃ শিবায় ” মন্ত্রটির জপ করার পাশাপাশি শ্রাবণ মাসে প্রতি সোমবার উপোস সহ শিবের পূজা করে যদি ” ওম নমঃ শিবায় ” মন্ত্রটি এক মনে উচ্চারণ করা হয় । তাহলে  অনেকগুলি সুফল পাওয়া যায়। কারণ মনে করা হয় যে এই মন্ত্রে  রয়েছে শব্দ তরঙ্গ যা আমাদের ইতিবাচক চিন্তা শক্তিকে উৎসাহিত করতে সাহায্য করে এবং মনোযোগ বৃদ্ধি পায় ফলে পড়াশোনা অফিসের কাজ খুব তাড়াতাড়ি ভালো হয় এবং দুশ্চিন্তা দূর হয় ও মনে শান্তি ফিরে ।

শিব পুরাণে ওম নমঃ শিবায় কে এমন মন্ত্র বলা হয়েছে, যে মন্ত্র জপ করে আপনি আপনার মনষ্কামনা পূর্ণ করতে পারবেন। যদিও সব মন্ত্রেরই কোন না কোন প্রভাব রয়েছে। কিন্তু ওম নমঃ শিবায় হল মহামন্ত্র। কেবল এই একটি মন্ত্রের জপ করলে আপনার জীবনে ভাগ্য বদলে যেতে পারে। শিব পুরাণে এই মন্ত্রকে পঞ্চাক্ষরী মন্ত্র বলা হয়েছে। কারণ এই মন্ত্রের উৎপত্তি প্রণব মন্ত্র ওম এর সাথে ওম নমঃ শিবায় অক্ষরে যুক্ত করে হয়েছে।

শ্রাবণ মাসে সোমবারে ব্রত পালন

অনেকেই প্রতি সোমবার শিব পূজা করে থাকেন । আবার অনেকে কাঙ্খিত ফল কামনায় মহাদেবের ১৬ টি  সোমবার ব্রত পালন করে থাকেন । তবে অনান্য সোমবার দিনের তুলনায় শ্রাবণ মাসের সোমবার দিনটির  গুরুপ্ত অনেকটাই বেশি । সাধারণত প্রতিবছর গোটা শ্রাবণ মাস ব্যাপী ৪ টি আথবা ৫ টি সোমবার পরে ।

শ্রাবণ মাসে শিব ঠাকুর কে  বেলপাতা , জল , দুধ দই এবং ঘি দিয়ে উপাসনা করা হয় । এর পাশাপাশি শিব পূজার সময় ব্যবহার করা হয় চাল, ফুল, ফল এবং আরো অন্যান্য জিনিস। স্নান এবং নিত্য কর্ম করে সারাদিন উপোস করে , পরিষ্কার পোশাক পরে শিবের উপাসনা করতে যান শিব ভক্তরা । কথিত আছে এই পুজোর সময় যে সংকল্প করা হয় সেটি পূরণ হয় ।

শাস্ত্র মতে ধুতরা ফুলে সন্তুষ্ট হন মহাদেব । তাই শিব পূজায় এই ফুল ব্যবহার করতেই পারেন । শিবের আরাধনায় সিঁদুর ,হলুদ রং, হলুদ ফুল এবং হলুদ সামগ্রী নিবেদন করা উচিত নয় । কারণ শাস্ত্রমতে দেবাদিদেব হলেন যোগী এই কারণেই শিব ঠাকুরের পূজা করার সময় হলুদ এবং সিঁদুর নিবেদন করতে মানা করা হয় ।

RELATED ARTICLES

Most Popular

close